ভিভো v23 বাংলাদেশ প্রাইস | Vivo v23 5G price in Bangladesh

ভিভো v23 বাংলাদেশ প্রাইস - আজকে কথা বলব Vivo মোবাইল নিয়ে । Vivo মোবাইল বর্তমানে বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয়।  বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের সাথে Vivo এর নতুন একটি মোবাইল ফোন নিয়ে কথা বলব সেটি হল Vivo v23 5G। এই মোবাইলটি বাংলাদেশের খুবই জনপ্রিয়তা লাভ করছে। আপনাদের বাজেট যদি ৩৯০০০ বা এর বেশি থাকে তাহলে আপনারা এই ফোনটি দেখতে পারেন।  নিচে ফোনটির কিছু তথ্য আলোচনা করা হল। আমাদের গুগল নিউজ ফলো করুন ।

ভিভো v23 বাংলাদেশ প্রাইস | Vivo v23 5G price in Bangladesh


ভিভো v23 5G সংক্ষিপ্ত বিবরন


8GB RAM + 128GB স্টোরেজ

সামনে ডুয়াল 50+8 মেগাপিক্সেল সেলফি

প্রাথমিক ক্যামেরা ট্রিপল 64+8+2 মেগাপিক্সেল 

6.44 ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড স্ক্রিন

মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি 920 5G

নেটওয়ার্ক 2G, 3G, 4G, 5G

4200 mAh  ব্যাটারি

দ্রুত চার্জিং সমর্থন করে

ভিভো v23 বাংলাদেশ প্রাইস | Vivo v23 5G price in Bangladesh

ভিভো v23 5G  বাংলাদেশ অফিশিয়াল  প্রাইস ৩৯,৯৯০ টাকা সাথে থাকছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম ।

বাংলাদেশে অফিশিয়াল  রিলিজ তারিখ - ১৯ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে বাংলাদেশে ভিভো V23 5G ফোনটিকে লঞ্চ করা হয়।

ভিভো v23 বডি এবং সেন্সর - সানশাইন গোল্ড এবং স্টারডাস্ট ব্ল্যাক এই দুইটি কালারের ফোনটিকে পাওয়া যাচ্ছে। ১৭৯ গ্রাম ওজনের এই ফোনটির ফ্রন্ট গ্লাসে রয়েছে স্কট জেনসেশন আপ গ্লাস প্রটেকশন। ভিভো সব সময় আলাদা ও নতুন কিছু করার চেষ্টা করে। যা এই ফোনটি দেখে বোঝা যায়। আল্ট্রাভায়োলেট রশ্মিরতে ফোনটির ব্যাক প্যানেলের কালার পরিবর্তিত হয়। অর্থাৎ সূর্যের আলোতে ফোনটির পেছনের অংশের কালার চেঞ্জ হয়। ফোনটিতে রয়েছে একটি সেন্সর অ্যাক্সিলোমিটার, গাইরো, প্রক্সিমিটি ও কম্পাস সেন্সর। আন্ডার-ডিসপ্লে, অপটিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট সঠিকভাবে খুব দ্রুত কাজ করে। ফেস আনলক সিস্টেম একবারে ঠিকঠাক রয়েছে।

ভিভো v23 নেটওয়ার্ক ও পারফরম্যান্স - ফোনটিতে পাচ্ছেন ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সুবিধা। 5G ছাড়াও 3G ও 4G নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে vivo v23 ফোনটিতে। তাছাড়া এতে GPRS এবং EDGE সুবিধাও রয়েছে। android 12 অপারেটিং সিস্টেমের এই ফোনটিতে রয়েছে MediaTek Dimensity 920 5G (6 nm), Octa-core (2×2.5 GHz Cortex-A78 & 6×2.0 GHz Cortex-A55) প্রসেসর।


ভিভো v23 5G ডিসপ্লে - এই ফোনটিতে রয়েছে ৬.৪৪ ইঞ্চি অ্যামুলেড ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন, ১৬ এম কালার সমর্থিত নচ ডিসপ্লে। ফোনটির ডিসপ্লে রেজোলিউশন ১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল এবং এর পিপিআই হল ৪০৯

ভিভো v23 র‌্যাম এবং রম - কোম্পানি ভিভো v23  ফোনটিকে 8GB/128GB এবং 12GB/256GB এই দুইটি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করেছে। গেমিং এর জন্য গ্রাফিক্স এবং র‌্যাম মোটামুটি ঠিকই আছে। FHD গ্রাফিক্সের গেমগুলি খুব সহজেই স্মুথ ভাবে খেলা যায়।

ভিভো v23 5Gক্যামেরা - ভিভো v23 ফোনের পিছনে রয়েছে একটি (64MP+8MP+2MP) ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ যা দিয়ে আপনি ভালো মানের ছবি তুলতে পারবেন এবং সর্বাধিক 4K@30fps ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন। ফোনটিতে থাকছে একটি (50MP+8MP) সেলফি ক্যামেরা যার সাহায্যে ভালো মানের সেলফি তুলতে পারবেন। সেলফি ক্যামেরা দিয়ে সর্বাধিক 4K@30fps ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।

ভিভো v23 5G ব্যাটারি পারফরম্যান্স - এবার ফোনটির ব্যাটারি পারফরম্যান্স সম্পর্কে জানা যায়। এই ফোনটিতে রয়েছে একটি Li-Polymer 4200 mAh ব্যাটারি। যার সাহায্যে গড়ে ১০৫ ঘন্টা স্ট্যান্ডবাই টাইম এবং ১৩ ঘন্টা নেট ব্রাউজিং করা যাবে। ফোনটির সম্পূর্ণ চার্জ দিয়ে 3G নেটওয়ার্কে প্রায় ২৫ ঘন্টা পর্যন্ত কথা বলা যাবে। 44W ফাস্ট চার্জিংয়ের মাধ্যমে ফোনটি সম্পূর্ণ চার্জ হতে প্রায় ৪৫ মিনিট সময় লাগবে।

Vivo v23 5G ভালো দিক


✔ স্টাইলিশ ডিজাইন

✔ ফুল HD+ AMOLED, HDR10+, 90Hz ডিসপ্লে

✔ উন্নত ফ্রন্ট এবং ব্যাক ক্যামেরা কোয়ালিটি

✔ ডাইমেনসিটি 920 5G চিপসেট, 8 জিবি র‌্যাম সহ সূক্ষ্ম কর্মক্ষমতা

✔ 44W দ্রুত চার্জ

✔ অপটিক্যাল ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর

✔ Android 12, ভবিষ্যতে Android 13-এ আপগ্রেড করার প্রত্যাশিত৷

✔ 5G


Vivo v23 5G মন্দ দিক

✘ কোন রেডিও নেই

✘ কোন 3.5 মিমি জ্যাক

ভিভো v23 5G   সম্পর্কে আমাদের মতামত

 ভিভো v23  5G নিঃসন্দেহে একটি গুড লুকিং ফোন। ফোনটিকে খারাপ বলার কোন সুযোগ নেই। ফোনটিতে ৩.৫ মিমি অডিও জ্যাক ও ডেডিকেটেড মাইক্রো এসডি কার্ড স্লট নেই। ফোনটির ডিসপ্লে, ব্যাক ক্যামেরা, সেলফি ক্যামেরা অ্যাডভান্স লেভেলের মনে হয়েছে। তাছাড়া ৪৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সিস্টেম অনেকটা এডভান্স লেভেলের।

তবে পারফরমেন্সের দিক দিয়ে এই বাজেটের অনেক ফোন থেকে ভিভো v23 5G কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে বলে মনে হয়। আর আমার কাছে মনে হয়েছে ফোনটির দাম কিছুটা কম হওয়া উচিত ছিল।

শেষ কথা ভিভো v23 বাংলাদেশ প্রাইস আজকের এই পোস্টে তুলে ধরা হয়েছে । সর্ব দিক বিবেচনা করে আপনি Vivo v23 5G এই ফোনটি দেখতে পারেন । আশা করি পোস্টটি একটু হলেও আপনার উপকারে আসবে । তবে মোবাইল ফোন কেনার পূর্বে অবশ্যই পুনরায় দাম দেখে নিবেন ।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url